ইলেকট্রনিকস

ইলেকট্রনিকস

ইলেকট্রনিকস
ইলেকট্রনিক্স সমস্যার সমাধানে এলো ‘দ্রুত’ অ্যাপ

আপনাদের জন্য দ্রুত অ্যাপ নিয়ে এল ককটি দারুন খবর। বাংলাদেশে এখন থেকে অ্যাপেই মিলবে ইলেকট্রনিক্স কিংবা ইলেকট্রিক্যাল পণ্যের সকল সমস্যার সমাধান। এর জন্য চালু করা হয়েছে নতুন একটি অ্যাপ যার নাম- ‘দ্রুত (Drooto)’। আমরা জানি, বেশ কয়েকবছর পূর্বেই ‘দ্রুত’ মোবাইল অ্যাপটি চালুর ঘোষণা দেন বেস্ট ইলেকট্রনিকসের ব্যবস্থাপনা পরিচালক সৈয়দ তাহমিদ জামান রাশিক।

এই অ্যাপসটির ব্যবস্থাপনা পরিচালক সৈয়দ তাহমিদ জামান রাশিক আমাদের জানান, গুগল প্লে স্টোর থেকে ‘দ্রুত’ (bit.ly/DrootoApp) অ্যাপটি ডাউনলোড করে ঘরে বসেই যে কোনো ইলেকট্রনিক্স কিংবা ইলেকট্রিক্যাল পণ্য মেরামত করা সংক্রান্ত সেবা নেয়া যাবে।



সৈয়দ তাহমিদ জামান রাশিক বলেন, প্রথমে ‘দ্রুত’ অ্যাপে সার্ভিসের জন্য বুকিং করতে হবে। এরপর মুহূর্তের মধ্যে আমাদের সার্ভিস টিম পৌঁছে যাবে আপনার ঠিকানায়।

এছাড়াও ‘দ্রুত’ এ্যাপসটির রয়েছে ১৩ (তের) টিরও বেশি নিজস্ব সার্ভিস সেন্টার এবং ১১৫ (একশত পনের) জন সার্ভিস এক্সপার্ট যারা অভিজ্ঞতা ও পেশাদারিত্বের দিক দিয়ে প্রশংসনীয় অবদান রেখে চলেছে।

বিস্তারিত জানতে কল করুন- ০৯৬৭৮৭৬৭৬৭৬।

এছাড়াও আপনাদের সুবিধার কথা বিবেচনা করে নিচে প্রকাশ করলাম আরেকটি মোবাইল অ্যাপ।

ইলেকট্রনিক্স সমস্যার সমাধানে এলো ‘সেবা’ অ্যাপ


‘সেবা’ নামের মোবাইল অ্যাপে বাসা বদলানো থেকে শুরু করে সার্ভিসিং সংক্রান্ত যে কোনো ধরণের সমস্যার সমাধান মিলবে। এর মাধ্যমে ইলেকট্রনিক্স পণ্যের সার্ভিসিং সেবা এখন হাতের মুঠোয় চলে আসলো।

এই অসাধারণ অ্যাপের মাধ্যমে ল্যাপটপ, মোবাইল, ফ্রিজ, এয়ারকন্ডিশনার, ওয়াশিং-মেশিন সহ আরও অনেক ইলেকট্রনিক্স পণ্য ঠিক করা, বাসা বদলানো, রেন্ট-এ-কার সুবিধা ও নারীদের জন্য বিউটি সার্ভিস পাওয়া যাবে ঘরে বসেই। এসব সুবিধা পেতে কে না চায়? এসব সুবিধা পেতে চাইলে আপনিও এ্যাপসটি ইনস্টল করে সুবিধা ভোগ করতে পারেন।

মূলত যখন তখন পৃথীবির সবচেয়ে বড় এ্যাপস নেটওয়ার্ক গুগল প্লে স্টোর থেকে Sheba.xyz মোবাইল অ্যাপটি ইন্সটল করে যে কেউ এসব সার্ভিস নিতে পারবেন। এছাড়া www.sheba.xyz থেকে অথবা ১৬৫১৬ নম্বরে ফোন করেও এসব সেবা গ্রহণ করা যাবে। আমাদের বর্তমান কর্মব্যস্ত জীবনে ঝামেলা হতে মুক্তি পেতে

অ্যাপসটি ইতিমধ্যে বেশ জনপ্রিয় হয়ে উঠেছে। প্রান্তিক মানুষের দোরগোড়ায় পৌঁছে যাওয়া এই সার্ভিসিং প্ল্যাটফর্ম সহজ করে দিচ্ছে আমাদের প্রতিদিনকার জীবনযাপন।




Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *